নিউজবিনোদনরাজনীতি

ত্রিপুরায় তৃণমূলের ঘাঁটি শক্ত করতে চলতি সপ্তাহে ‘মিশন ত্রিপুরা’য় অংশ গ্রহণ করবেন দেব

তৃণমূল কংগ্রেসের ‘ত্রিপুরা দূর্গ’ দখল ক্রমশ এগোচ্ছে। ত্রিপুরার গদি দখল করতে এই মুহূর্তে তৃণমূলের তুরুপের তাস অভিনেতা-সাংসদ দীপক অধিকারী (Dipak Adhikari) ওরফে দেব (Dev)। বিধানসভা ভোটে তৃতীয় বার বাংলা দখলের পর এবার তৃণমূলের নজরে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল রাজ্যগুলি। ত্রিপুরায় গিয়ে এর আগে আক্রান্ত হয়েছিলেন অভিষেক ব্যানার্জী (Abhishek Banerjee) ও তৃণমূলের অন্যান্য দলীয় নেতারা। এবার দেবকে পাঠানো হতে পারে ত্রিপুরা।

তৃণমূল কংগ্রেসের সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে দেবের আগরতলা সফর হতে পারে। ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি আশিসলাল সিংহ (Ashishlal sinha) জানিয়েছেন, চলতি সপ্তাহে দেব আগরতলায় আসতে পারেন। তবে তাঁর কর্মসূচী এখনও স্থির হয়নি। কর্মসূচী স্থির করে তবেই সংবাদমাধ্যমে দেবের আগরতলা সফরের কথা ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ত্রিপুরার ব্লু-প্রিন্ট তৈরি করছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এখনও অবধি রাজনৈতিক নেতাদের ‘মিশন ত্রিপুরা’-য় অংশগ্রহণ করতে দেখা গেলেও দেবের মতো ফিল্মস্টার-সাংসদকে ব্যবহার করার কৌশল অভিনব বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। পশ্চিমবঙ্গের পর ত্রিপুরাতেই অধিক সংখ্যক বাঙালি বাস করেন। ফলে দেবের জনপ্রিয়তা তৃণমূলের কাছে ‘মিশন ত্রিপুরা’-র ক্ষেত্রে হতে পারে স্পেশ‍্যাল ‘টপিংস’। নতুন প্রজন্মের কাছে দেবের গ্রহণযোগ্যতা অধিক।

এছাড়াও দেব সৌজন্য রাজনীতিতে বিশ্বাস করেন। ফলে কোনোরকম আগ্রাসন তাঁর উপস্থিতিতে দেখা যায় না। ফলে বিরোধী পক্ষের সঙ্গে যথেষ্ট কূটনৈতিক ভাবে ডিল করার ক্ষমতা রাখেন ঘাটালের সাংসদ দীপক অধিকারী। সুতরাং , এই মুহূর্তে বাংলা তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব তাকিয়ে দেব ক্যারিশমার দিকে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dev Adhikari (@imdevadhikari)

Back to top button