নিউজরাজনীতি

একটু ভেবে ভোট দেবেন, যে দল মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থাকবে, তারাই যেন সরকার গঠন করে :দেব

তৃণমূলের অন্যতম তারকা প্রচারক ও ঘাটালের সাংসদ হলেন দেব। তিনি বরাবরই হিংসা নয় সৌজন্যের রাজিনীতে বিশ্বাসী। আর সেই তারকা দেব এবার রাজনীতি নিয়ে করে বসলেন বিস্ফোরক মন্তব্য তিনি প্রকাশ্য সভায় বলেন “বর্তমানে রাজনীতিটা ভীষণ জটিল হয়ে গিয়েছে। আমি খাপ খাওয়াতে পারছি না”, ‘দিদি’ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) প্রার্থী হতে বললেও তিনি ভোটে দাঁড়াতেন না।’ আর তারপরেই উঠছে প্রশ্ন তবে কি দেব রাজনীতি থেকে সন্যাস নিতে চলেছেন ! এখন সেই প্রশ্নই উঠছে রাজনৈতিক মহলে।

দেব বসিরহাট দক্ষিণ বিধানসভার তৃণমূল প্রার্থী সপ্তর্ষী বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের হয়ে প্রচারে গিয়েছিলেন সেহানেই তিনি এমন বিস্ফোরক মন্তব্য করে বলেন “কীসের জন্য এই নির্বাচন বুঝতেই পারছি না! রাজনীতিটা ক্রমশ বড্ড জটিল হয়ে উঠছে। নিজেকে খাপ খাওয়াতে পারছি না। ধর্ম নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে। ভোট নেওয়ার জন্য হিন্দু নেতারা হিন্দুদেরকে বলছে আপনারা সুরক্ষিত নন, আপনারা আমাদেরকে ভোট দিন, আমরা আপনাদের সুরক্ষিত রাখব। মুসলমানদের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটছে।” “আমার মাথায় আসছে না, তবে কে সুরক্ষিত আছে এই দেশে? হিন্দু-মুসলমান দু’পক্ষই যদি বলেন, কেউ সুরক্ষিত নন, তাহলে কারা সুরক্ষিত? ভাবুন!”

এরপর তিনি গেরুয়া শিবিরের উপর তোপ দেগে বলেন “আসলে আমাদের দেশে সুরক্ষিত সেই নেতারা, যাঁরা সবাইকে বোকা বানিয়ে ভোট নিয়ে যান। হিন্দু-মুসলিম লড়াই বাঁধান।” “সম্মানীয় হিন্দু নেতারা লকডাউনের সময় কোথায় ছিলেন? লক্ষ-লক্ষ শ্রমিক বন্ধুরা যখন পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন, খেতে পাচ্ছিলেন না, বাড়ি যেতে পারছিলেন না, কোথায় ছিলেন তখন এই নেতারা? আজ আমি সাধারণ মানুষের তরফ থেকে দু’পক্ষের নেতাদের জিজ্ঞেস করছি, যখন আপনাদের প্রয়োজন ছিল কোথায় ছিলেন? সেইসময় তাঁরা কেন ছিলেন না বলুন তো! তাই শুধু একটু ভেবে ভোট দেবেন, যাতে যে দল মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে থাকবে, তারাই যেন সরকার গঠন করে সকলের পাশে থাকতে পারে।”

দেব যে কাদা ছোড়াছুড়ির পরিবর্তে সৌজন্যের রাজনীতিতে বিশ্বাসী তা তিনি আরও একবার প্রমান করলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button