নিউজবিনোদন

‘তুমি ছিলে, আছো এবং থাকবে’, মমতা ব্যানার্জীকে তার জয়ের জন্য শুভেচ্ছা জানালেন ‘দিদি নং ১’- রচনা ব্যানার্জি

বাংলা টেলিভিশনের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন রচনা ব্যানার্জী। অভিনয় জগতে না থাকলেও রোজ নিয়ম করে দর্শকদের ঘরে পৌঁছে যান অভিনেত্রী ‘দিদি নং ১’-এর মাধ্যমে। জী বাংলায় এটি একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো। গত ১০ বছর ধরে এই শো এর সঞ্চালনা করে চলেছেন অভিনেত্রী। কিন্তু তা থেকে পেয়েছেন আনন্দ। কোনোদিন নিরাশ হননি তিনি।

যিনি রচনা ব্যানার্জী আর অপরদিকে নির্বাচনে জিতে আবার রাজ্যপাট হাতে নিয়েছেন বাংলার মেয়ে মমতা ব্যানার্জী। তাই দুজনের মধ্যেই মিল রয়েছে। একজন রাজ্য চালান আরেকজন টেলিভিশনের রিয়ালিটি শো সঞ্চালনার মাধ্যমে সকলকে আনন্দ দেন। রাজ্য যখন দিদির হাতে, তখন অন্য দিদি তার সুখ্যাতি না করে পারে! সেরকমই মমতা ব্যানার্জির জয়ে ভাসলেন দিদি নং ওয়ান এর সঞ্চালক রচনা ব্যানার্জি।

দুজনেই যেন বাংলার দিদি। কিন্তু দুজনেরই কাজের ক্ষেত্র তা আলাদা। অবশ্য দিদির জয়ে খুশি অভিনেত্রী। তাইতো দিদির সুখ্যাতিতে কোনো কৃপণতা করেননি। ভোটের রেজাল্টের পরেই, নিজের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে মমতা ব্যানার্জির ছবি তুলে ধরলেন, আর লিখলেন “one n only Didi, তুমি ছিলে, আছো, এবং থাকবে। গর্বিত রাজ্য দেশ এবং সারা পৃথিবী।”

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Rachna Banerjee (@rachnabanerjee)

এই বারের নির্বাচনে বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলে। নির্বাচনে তৃণমূল সর্বাধিক আসনে জয়লাভ করেন। অপরদিকে বিজেপি এতো লড়াই করার পরেও ৭৩ টি সিট্ নিয়ে বিরোধী দল হিসেবে থেকে গেল বিজেপি। অন্যদিকে কমিউনিস্ট পার্টির দফারফা করে ছাড়লো জনগন। ভোটের প্রচারে মানুষ একত্র হলেও দিদির পিছু আসলে কেউই ছাড়েনি।মহিলা মহল থেকে সংখ্যা লঘিষ্ঠ মানুষের পুরো ভোট নিয়ে আজ জয়ী মমতা ব্যানার্জি। অবশ্য এতে খুশি বিনোদন ক্ষেত্রও‌ । আর তারপরেই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে নিয়ে তারকারা নানারকম মন্তব্য করতে থাকেন। দিলীপ ঘোষের কথা ‘রগড়ে দেব’ নিয়ে অনেকেই অনেক মন্তব্য করেন।অভিনেতা পরমব্রত বলেন ‘আজ রাগরানি দিবস পালন হয়ে যাক’। একদিকে যেমন দিদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ গোটা ইন্ডাস্ট্রি তেমনই সমালোচনার ঝড় বইছে বিরোধী পক্ষকে লক্ষ্য করে। ইতিমধ্যেই দিদির জয়ে নানান জায়গা থেকে শুভেচ্ছাবার্তা চলে এসেছে। খুশি সকলেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button