কলকাতা

বিজেপি কর্মীদের নিয়ে যাওয়ায় বসে হামলা চালালো পুলিশ, আহত বেশ কিছু সাধারণ মানুষ

আজ বিজেপির নবান্ন অভিযানে কারণে চাঞ্চল্য ছড়ালো ডানকুনিতে। এদিকে যেমন বিজেপির অভিযানের আগেই নবান্ন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার, তেমনই অপরদিকে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কলকাতার উদ্দেশে রওনা দেওয়া বিজেপির নেতা, কর্মীদের গাড়ি আটকে গ্রেফতার করছে পুলিশ। হুগলির ডানকুনিতে টোল প্লাজার পাশে বিজেপি কর্মীদের গাড়ি আটকে দেয় পুলিশ। এরপর বিজেপি কর্মীরা রাস্তা অবরোধ করলে পুলিশ কর্মীরা লাঠিচার্জ শুরু করে দেয়।

পুলিশের সেই লাঠিচার্জের জেরে বহু বিজেপিকর্মী আহত হন। বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীকে লাঠি দিয়ে বিজেপির কর্মী বোঝাই বসে হামলা করতে দেখা গিয়েছে। সেই লাঠি চার্জের কারণে বিজেপি কর্মীর পাশাপাশি একাধিক সাধারণ যাত্রীও আহত হয়েছে বলে এক তথ্যানুসারে জানা গিয়েছে। তবে এই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে যে, পুলিশ হয়ে কিভাবে একটি বাসের ওপর হামলা চালাতে পারে ?

অপরদিকে নবান্নের সামনে তৈরী করা হয়েছে ত্রিস্তরীয় সুরক্ষা বলয়। বলা ভালো যে, কোনওমতেই নবান্নের ধারেকাছে ঘেঁষতে দেওয়া হবে না বিজেপি কর্মীদের। আবার অন্যদিকে নবান্ন বন্ধ হতেই কালীঘাটে মমতা ব্যানার্জির বাড়ির সামনে বিজেপি মহিলা কর্মীরা ধর্নায় বসেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে দেওয়া হচ্ছে জয় শ্রীরাম স্লোগান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button