বিনোদন

“আপনার প্রচুর অহংকার”! অভিনেত্রীকে অহংকারী বলায় ক্ষেপে গিয়ে এর মোক্ষম জবাব দিলেন সকলের প্রিয় ‘নিরুপমা’

ষ্টার জলসার পর্দায় জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘ওগো নিরুপমা’। এই ধারাবাহিকে নিরুপমা অর্থাৎ অর্কজা আচার্য নিজের অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শক মনে জায়গা করে নিয়েছেন। ধারাবাহিকে আবিরের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় টেলিভিশনের পরিচিত মুখ গৌরব রায়চৌধুরিকে। আর গৌরবের সৎ মা অর্থাৎ খল চরিত্রে অভিনয় করেছেন তুলিকা বসু।

ধারাবাহিকে অভিনেত্রীর চরিত্রটি আলাদা। এখানে অভিনেত্রী একজন কালো কুৎসিত। অপরদিকে নিরুপমার বিপরীতে থাকা আবির চরিত্র বেশ সুদর্শন। “আমি রূপে তোমায় ভোলাব না, ভালোবাসায় ভোলাব……” । এই নিয়েই শুরু হয়েছিল গল্প। সৌন্দর্যের নতুন রূপ দেখাতেই এই ধারাবাহিকের সূচনা। কিন্তু বাস্তব জীবনে যে এরটা সুন্দর ও আকর্ষণীয় তা কল্পনার বাইরে।

অভিনয়ের পাশাপাশি বাস্তব জীবনে অভিনেত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় থাকেন । বেশ জনপ্রিয় তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাই যখন নিজের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে থাকেন, তখন অনেকেই কমেন্ট বক্সে তার রূপের গুণকীর্তন করেন।কিন্তু, এরইমধ্যে কিছু নেট জনতা অর্কজার উপর নিজেদের রাগ প্রদর্শন করেন। কারোর কারোর দাবি, “আপনার প্রচুর অহংকার” নাহ এখানেই শেষ নয়। এখানেই থামেননি তারা , এরপরে আরো বলেন যে খ্যাতির জন্য মানুষের সাথে ভালো ব্যাবহার করতে জানতে হয়।

কিন্তু বাস্তব জীবনে অর্কজা রাগী নন। তিনি জানেন যে মানুষের সাথে কিভাবে ঠান্ডা মাথায় কথা বলতে হয়। সেই জন্যেই তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন,”কাজের ব্যস্ততা এতটাই যে সর্বক্ষণ অনুরাগীদের কাছাকাছি পৌঁছনো যায় না। সেই কারণেই হয়তো অনুরাগীদের মনে অভিমান তৈরি হচ্ছে। তাঁর জন্য আমি অত্যন্ত দুঃখিত।” অভিনেত্রী এখানেই থামেননি তিনি আরো বলেন, “বাংলাদেশের অনুরাগীদের সঙ্গে আমি কী ভাবে যোগাযোগ করব? নেটমাধ্যম ছাড়া এখন সম্ভব নয়। মার্ক জুকারবার্গ এমন যুগান্তকারী আবিষ্কার করেছেন যে মুঠোফোন ছাড়া জগত বিচ্ছিন্ন মনে হয়। দুনিয়া এখন হাতের মুঠোয়।” এরপর অভিনেত্রী বলেন যে সময়ের অভাব থাকায় তিনি সকলের সাথে সেরকম যোগাযোগ করতে পারেন না। সেই প্রসঙ্গে বলেন,”দর্শকরা যেন আমায় ভুল না বোঝেন। আমার অহংকার নেই বা আমি পাত্তা দিই না, এমন নয়। কেবল সময়ের অভাব, এই যা।” মুহূর্তেই ভাইরাল তার যদি মন্তব্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button