লাইফস্টাইল

আপনার শিশু কি খেতে চাই না! তাহলে জেনেনিন আপনার যা যা করণীয়

এখনকার মায়েদের সবচেয়ে বড় অভিযোগ সম্ভবত এটাই যে, তার শিশু খেতে চায় না। শুধু অভিযোগই নয়, বরং এটি চিন্তার বিষয়ও। কারণ শিশু যদি একদমই খেতে না চায় তবে তার শরীরে প্রয়োজনীয় পুষ্টি পৌঁছানো কঠিন হবে। তাই তো কী করলে শিশু খেতে চাইবে সেই চিন্তায় থাকেন বেশিরভাগ মা-বাবা।

এদিকে আবার ফাস্টফুড যেমন পিজ্জা, বার্গার, চিপস, কোল্ড ড্রিংক হলে শিশুকে বলে দিতে হয় না। এসব খাবার তারা খুব আগ্রহ করেই খায়। কিন্তু ফাস্টফুডে থাকে না প্রয়োজনীয় পুষ্টি। শিশুরা কেবল এসব মুখরোচক খাবারই খেতে চায়, এদিকে মা-বাবা সেসব খেতে দিতে চান না। এমন সমস্যা ঘরে ঘরে। এর সমাধানে মা-বাবাকে করতে হবে কিছু কাজ, চলুন জেনে নেওয়া যাক-

বিস্বাদ খাবার দেবেন না

অনেকের ধারণা শিশুর খাবার মানেই সেটি বিস্বাদ হবে। কোনো ধরনের ঝাল-মসলা ছাড়া সেদ্ধ খাবার তারা শিশুকে দিতে চান। বেশিরভাগ মা-বাবাই শিশুকে সব খাবার চটকে তরল করে খাওয়ান। এতে স্বাদের সঙ্গে সঙ্গে চলে যায় পুষ্টিগুণও। তাই শিশুকে স্বাস্থ্যকর খাবার দেওয়ার পাশাপাশি সেটি যেন সুস্বাদু হয়, সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

সবজি চিনতে শেখান

শিশু কি ফল, সবজিসহ নানা খাবার আলাদা করে চিনতে পারে? তাহলে এটি আরও আনন্দদায়ক করতে শিশুকে রান্নাঘরে ডেকে নিন। কোনটি কোন সবজি বা ফল তা তার কাছে জানতে চান। এটি শিশুর কাছে একটি খেলার মতো হতে পারে। শিশু তখন আনন্দ নিয়ে খাবারের নাম বলবে এবং খেতেও শিখবে।

সবজি কিনতে নিয়ে যান

আপনার যদি হাতে সময় থাকে তবে শপিংমলে শিশুকে নিয়ে যান। যেসব ফল ও সবজি কিনতে চাইছেন সেগুলো তাকে খুঁজে বের করতে বলুন। সে যেগুলো চিনে কিনে আনতে পারবে সেগুলো রান্নার পর তাকে খেতে দিন এবং স্বাদ সম্পর্কে জানতে চান। বলুন যে এই রান্নায় তারও অবদান রয়েছে, কারণ এগুলো কিনতে সে সাহায্য করেছে।

উৎসাহ দিন, প্রশংসা করুন

শিশুর বাড়ন্ত বয়সে উৎসাহ ও প্রশংসা খুব ভালো কাজ করে। তাই শিশু খেতে না চাইলে তাকে বকাঝকা না করে তার প্রশংসা করুন। তার নানা কাজের প্রশংসা করুন। তার খেলাধুলা, লেখাপড়া কিংবা বুদ্ধির প্রশংসা করুন। এতে শিশুর মন ভালো হবে এবং সে খুশি মনে খেতে চাইবে। তাকে বুঝিয়ে বলুন যে খাবার ভালোভাবে শেষ করাটাও বুদ্ধিমানের কাজ।

শিশুর সঙ্গে খাবার ভাগ করে খান

শিশুর ধারণা থাকে যে তার খাবার বিরক্তিকর ও বিস্বাদ বলেই বড়রা তা খায় না। তাকে এই ধারণা থেকে বের করে আনুন। শিশুর খাবার তার সঙ্গে আপনিও অল্প-স্বল্প খেয়ে নিন। এতে সে বুঝতে পারবে যে তাকে বিরক্তিকর খাবার দেওয়া হচ্ছে না। তখন সে আগ্রহ করে খাবে।

খাবার পরিবেশনে ভিন্নতা আনুন

শিশুকে বড়দের মতো করে খাবার পরিবেশন করবেন না। এর বদলে নানাভাবে সাজিয়ে পরিবেশন করতে পারেন। কারণ শিশুদের মনের জগত বড়দের থেকে আলাদা। তারা অনেককিছুই কল্পনা করতে ভালোবাসে। তাই শিশুর খাবার যতটা সম্ভব আকর্ষণীয় করে পরিবেশন করুন। এতে শিশু খাবারের প্রতি আরও বেশি আকর্ষণ বোধ করবে।bs

Back to top button