বিনোদন

বলিউডের অন্ধকার জগত নিয়ে মুখ খুললেন এই তারকারা, দেখেনিন একঝলকে

রুপালি পর্দায় কাজ করতে গিয়ে সবসময় মুখে চওড়া হাসি রাখতে হয় তারকাদের। আর সে কারণেই সাধারণ মানুষ ভাবেন তারা হয়তো সবসময় সুখেই রয়েছেন। তবে আসল সত্যিটা কিন্তু একেবারেই ভিন্ন। এই বিষয়ে বহুবার মুখ খুলেছেন বলিউডের এক ঝাঁক অভিনেতা-অভিনেত্রী।

কেবল আলো নয়। বলিউডে রয়েছে অন্ধকার অধ্যায়ও। তারকাদের নাম, যশ, খ্যাতি যতই থাকুক না কেন। সকলেই একটা সময় পেরিয়ে এসেছে সেই অন্ধকার অধ্যায়। আর তারপরেই দেখেছেন আলোর মুখ। বলিউডের এই জগত নিয়ে জনসম্মুখে মুখ খুলেছেন বিদ্যা বালান, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া সহ আরও অনেকেই।

বিদ্যা বালান : বলিউড জগতের জনপ্রিয় নাম বিদ্যা বালান। উপার্জনের দিক থেকে অন্যান্য নায়িকাদের তুলনায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন তিনি। যদিও বলিউড ইন্ডাস্ট্রি নিয়ে তার অভিজ্ঞতা একেবারেই ভালো নয়। মোটা হওয়ার কারণে বহুবার খারাপ মন্তব্য শুনতে হয়েছে তাকে। এমনকি সেই কারণে নাকি মানসিক অবসাদেরও শিকার হয়েছিলেন এই অভিনেত্রী।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া : এই তালিকায় রয়েছেন আর এক জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। অভিনেত্রী তার নিজের রূপ নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন একটা সময়। অনেক বারই নাকি তাকে শুনতে হয়েছে অভিনয় করতে হলে ভালো চুল এবং গায়ের রং পরিষ্কার থাকাটা দরকার। যদিও এসবে খুব একটা পাত্তা দেননি তিনি।

অনুষ্কা শর্মা : বলিউড জগত নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুলেছিলেন এই অভিনেত্রী। তার মতে, অভিনেতাদের বয়স বাড়লেও তারা কাজ পান। কিন্তু অভিনেত্রীদের বয়স বাড়লে এবং ত্বকের জেলা কমে গেলে আর কাজ পাওয়া যায় না বলিউডে।

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী : বলিউড জগতে গায়ের রং এবং উচ্চতা নিয়ে সর্বদাই সমস্যা রয়েছে। অভিনেতা জানিয়েছিলেন, তার উচ্চতা কম হওয়ার কারণে বহু স্ট্রাগল করতে হয়েছে তাকে।

দীপিকা পাড়ুকোন : বলিউডে নাকি পারিশ্রমিকের ভেদাভেদ রয়েছে এমনই অভিযোগ তুলেছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। তার অভিযোগ, একটি ছবিতে কাজ করতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন তার তুলনায় অনেকটাই বেশি পারিশ্রমিক দেওয়া হচ্ছে অভিনেতাকে। তখনই ছবি থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

Back to top button