নিউজবিনোদনরাজ্য

‘সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ নেই, তাই রাজনীতিই পেশা’, রাজনীতিতে আসা তারকাদের ‘কটাক্ষ’ চিরঞ্জিতের!

বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন কে সামনে রেখে অভিনয় জগতের প্রায় সকল তারকাই এখন যোগ দিয়েছেন রাজনৈতিক শিবিরে।অভিনেতারা এখন পরিচ্চিটি পাচ্ছেন নেতা হিসেবে। দুই রাজনয়িক দলেই এখন তারকা স্ট্রাটেজি তুঙ্গে। বাংলার বিধানসভা ভোটার ইতিহাসে এতো ট্রাক প্রার্থীর ভিড় এর আগে দেখা যায়নি।

সিনেমার পর্দা ও টিভির সামনে বসলেই দেখা যায় ছোট -বড় বিভিন্ন তারকাকে। সন্ধ্যা নামলেই টিভির সামনে বসতে হবে আর এক কাপ চায়ের সাথে সিরিয়েল দেখার পালা। চা খেতে খেতে টিভির রিমোট হাতে একবার ষ্টার জলসা আর একবার জী বাংলায় নানারকম সিরিয়ালে মগ্ন থাকেন বাংলার গৃহবধূ থেকে বাড়ির কর্তারা।

আর এবার রাজনীতির ময়দানে সেই জনপ্রিয়তাকেই কাজে লাগাতে চাইছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। ইতিমধ্যে নির্বাচনী হাওয়ায় গা ভাসিয়ে রাজনীতির ময়দানে যোগ দিয়েছেন টলিউডের বিভিন্ন তারকারা। সেই তালিকায় রয়েছেন টলিউডের উঠতি অভিনেতা যশ দাসগুপ্ত ,হিরণ থেকে শুরু করে সায়ন্তিকা ও শ্রাবন্তী। নির্বাচনের আগেই দুই রাজনৈতিক দল তারঁ০অকাদের জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে পার করতে চাইছে ভোটের বৈতরণী।

এগিয়ে এসেছে ভোট। তাই চারিদিকে চলছে জোরকদমে প্রস্তুতি। টলিপাড়া থেকে শুরু করে সব জায়গায় চলছে রংবদলের খেলা। তারকাদের মধ্যে কেউ বেঁচে নিয়েছে গেরুয়া রং তো কেউ বেছে নিয়েছে সবুজ। বসন্তের উৎসব হোলি এখনো শুরুই হয়নি কিন্তু অনেকে সবুজ গেরুয়া নিয়ে মেতেছে। গোটা টলিউড বর্তমানে দুটি ভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে।

টলিউডের বহু তারকা বিজেপিতে যোগদানের পাশাপাশি কিছু তারকা যোগদান করেছেন তৃণমূলে। অভিনেত্রী মিমি, নুসরত এর পাশাপাশি রাজ চক্রবর্তী, কৌশানী মুখোপাধ্যায়, দীপঙ্কর দে, উস্তাদ রাশিদ খানের মেয়ে শাওনা খান, অভিনেতা ভরত কল, জল নূপুর’-এর অভিনেত্রী লাভলি মিত্র, প্রমূখরাও যোগদান করেছেন তৃণমূলে। চারিদিকে আওয়াজ উঠছে ‘খেলা হবে’।

নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা হয়ে গেছে বাংলায়। আর এবারের নির্বাচনে শক্তি বাড়িয়ে ঘরের কাছে নিঃস্বাস ফেলছে গেরুয়া শিবির।
প্রায় প্রতিদিনই এভাবে কেন ট্ৰাকরা নামছেন রাজনীতির ময়দানে ? আর এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের আর এক তারকা প্রার্থী চিরঞ্জিতের কথায় “ইন্ডাস্ট্রিতে সিনেমা-সিরিয়ালের অবস্থা খুব খারাপ। তাই বিকল্প পেশা হিসেবে রাজনীতিকেই বেছে নিচ্ছেন অভিনেতা-অভিনেত্রীরা।”

চিরঞ্জিতের কথায় সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে যদি বেশি কাজ থাকতো তাহলে হয়তো রাজনীতির ময়দানে নাম লিখতেন না কোনও তারকারা। নির্বাচনের আগে যেভাবে বিনোদন জগতের তারকারা রাজনীতির ময়দানে যোগ দিচ্ছেন তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতেও। নেটিজেনদের মন্তব্য যারা রাজীনীতিতে এসে এখনো কিছুই শেখেননি তারা কি করে চালাবেন রাজ্য। কারণ রাজনীতিতে যোগ দেওয়া মাত্রই প্রাথী হিসেবে দাঁড়িয়েছেন প্রথম রাজনীতির ময়দানে যোগ দেওয়া একাধিক তারকা। সেই তালিকায় রয়েছেন লাভলি মৈত্র, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, কাঞ্চন মল্লিক, সায়নী ঘোষ, রাজ চক্রবর্তী, জুন মালিয়ার মতো অনেকেই। তবে রাজ্ চক্রবর্তী ও জুন মালিয়াকে এর আগে কয়েকবার তৃণমূলের হয়ে প্রচার করতে দেখা গেলেও বাকি তারকারা একেবারেই আনকোরা রাজনীতির ময়দানে। নেটিজেনদের একাংশের মধ্যে আরও কয়েকজনের মত তারকারা সবাই এখন ব্যস্ত রাজনীতি নিয়ে তাই এবার ইন্ডাস্ট্রিতে এখন নতুন মুখের প্রয়োজন।। তৃণমূলের পক্ষ থেকে প্রাথী হিসেবে একাধিক তারকার নাম ঘোষণা করা হলেও বিজেপির পক্ষ থেকে এখনো পর্যন্ত ট্রাক প্রাথী হিসেবে ঘোষিত হয়েছে খড়্গপুর থেকে হিরণ চ্যাটার্জির নাম।

Back to top button