বিনোদন

এক দেওরকে না পেয়ে অন্য দেওরদের সঙ্গে পরকীয়া, বাংলা এই সিরিয়ালের অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে ভয়ংকর অভিযোগ

পরকীয়া, কুটকাচালি এসব তো প্রায় বেশিরভাগ বাংলা সিরিয়ালে হামেশা লেগেই রয়েছে। তবে কখনও কখনও সিরিয়ালগুলোতে পারিবারিক সম্পর্কগুলোকে খুবই নিচু দেখানো হয়। এই সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে সেটা কখনও মেনে নিতে পারেন না দর্শকরা। জি বাংলার ‘সোহাগ জল’ সিরিয়ালটিকে নিয়েও দর্শকদের একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

জি বাংলার এই ‘সোহাগ জল’ সিরিয়ালে দেওর এবং বৌদির মধ্যে পরকীয়া দেখানো হয়েছে। সিরিয়ালের শুরুতে দেখানো হয় ধারাবাহিকের নায়ক শুভ্রর প্রতি দুর্বল তার বিধবা বৌদি বেণী। যদিও নায়ক তাকে পাত্তা দেয় না সে তার বিবাহিতা স্ত্রীকেই ভালবাসে। কিন্তু বেণী বৌদি এক দেওরের মন গলাতে না পেরে তিনি আরেক দেওরকে নিজের জালে জড়িয়ে ফেলেন।

ফলস্বরূপ শুভ্রর আরেক দাদার সন্তানের মা হয়ে বসেন বেণী বৌদি। তিনি শুভ্রকে তার সন্তানের বাবা বলে দাবি করতে থাকেন। এরপর বেণী বৌদি যে কান্ড ঘটান তাতে হেসে কুটোপাটি দর্শকরা। সাম্যের সন্তানকে পেটে নিয়ে শুভ্রর নামের সিঁদুর পরে তিনি নিজেকে শুভ্রর স্ত্রী বলে দাবি করতে থাকেন। ব্যাস, পরকীয়াতে ষোলকলাপূর্ণ হয়।

এদিকে এমন নোংরামি দেখে আর চুপ থাকতে পারেনি দর্শকরা। তারা প্রতিবাদ করতে শুরু করেন সমাজ মাধ্যমে। শেষমেষ মুখ খোলেন বেণী বৌদি। এই চরিত্রে অভিনয় করছেন বাংলা সিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী। তিনি সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছেন সিরিয়ালে পরকীয়া দেখানো হচ্ছে না। সবটাই আসলে বেণীর চক্রান্ত। জীবনে সে কিছুই পায়নি। শুভ্রকে সে ভালবেসেছিল। তিনি জানেন দর্শকদের খুব রাগ হচ্ছে। দর্শকরা এই সিরিয়ালের উপর এতটাই বিরক্ত হয়েছেন যে সোহাগ জলের নাম বদলে পরকীয়া জল নাম রেখেছেন।

Back to top button