বিনোদন

‘ঋতুপর্ণ-র প্রতি আমার বিশ্বাস ছিল না’-প্রয়াত পরিচালককে নিয়ে মুখ খুললেন শিলাজিৎ

শিলাজিৎ (Silajit Majumder) নিজেকে গায়ক-অভিনেতা বলতে বেশি পছন্দ করেন। এই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি মজা করে জানালেন, ঋতুপর্ণ (Rituporno Ghosh)-র প্রতি তাঁর বিশ্বাস ছিল না। কথায় কথায় একটি ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন শিলাজিৎ।

সেই সময় ঋতুপর্ণ ‘অসুখ’ ফিল্মের পরিচালনা করছেন। এই ফিল্মে অভিনয় করেছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় (Soumitra Chatterjee) ও দেবশ্রী রায় (Debashree Ray)। ঋতুপর্ণ শিলাজিৎ-কে বলেন, তাঁকে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করতে হবে। দেবশ্রী ও সৌমিত্রর মতো দুই শিল্পীর সঙ্গে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়ে তখন রীতিমতো উচ্ছ্বসিত শিলাজিৎ। কিন্তু ঋতুপর্ণ শিলাজিৎ-এর কথা সৌমিত্রকে জানালে তিনি বলেন, শিলাজিৎ কি আদৌ এই চরিত্রে অভিনয় করতে পারবেন! সৌমিত্রর কথা ঋতুপর্ণ শিলাজিৎ-কে জানিয়েছিলেন। কিন্তু বন্ধু ঋতুপর্ণর যে ঢপ দেওয়ার অভ্যাস রয়েছে, নিমেষে গল্প বানানোর ক্ষমতা রয়েছে, তা জানতেন শিলাজিৎ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Silajit (@silajit_music)

ঋতুপর্ণর কাছে নিজের সম্পর্কে সৌমিত্রর মতামত শুনে মণঃক্ষুণ্ণ হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তিনি শুটিং করতে রাজি হয়েছিলেন। শিলাজিৎ-এর লুক, বাচনভঙ্গী মিলে গিয়েছিল চরিত্রের সঙ্গে। ঋতুপর্ণ যেন তাঁকে মাথায় রেখেই চরিত্রটি লিখেছিলেন। তবে সৌমিত্রর সঙ্গে শিলাজিৎ-এর খুব বেশি অংশ ছিল না। মাত্র একদিন ঘন্টা দুয়েকের শুট ছিল তাঁদের। ‘অসুখ’-এর প্রিমিয়ারের দিন সৌমিত্রর সঙ্গে দেখা হয় শিলাজিৎ-এর। কিংবদন্তী অভিনেতাকে পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেন শিলাজিৎ। এরপর সৌমিত্র নিজেই শিলাজিৎ-কে বলেন, তিনি যখন প্রথম চিত্রনাট্য শুনেছিলেন, তখন তাঁর মনে হয়েছিল, শিলাজিৎ কি সত্যিই এই ধরনের চরিত্রে অভিনয় করতে পারবেন!

 

View this post on Instagram

 

A post shared by NothingbutFilms (@nothingbutfilms)

কিন্তু প্রিমিয়ারের দিন ‘অসুখ’ দেখার পর সৌমিত্রর মনে হয়েছিল, শিলাজিৎ পরিণত অভিনেতাদের মতোই অভিনয় করেছেন। ‘অসুখ’ জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিল। কিন্তু সেই প্রিমিয়ারের সন্ধ্যায় সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো কিংবদন্তী শিল্পীর কাছ থেকে নিজের অভিনয়ের প্রশংসা শোনা শিলাজিৎ-এর কাছে হাজারটা জাতীয় পুরস্কারের থেকে কিছু কম ছিল না।

Back to top button