বিনোদন

সেক্সের বিনিময়েই পাওয়া যায় কাজ, বলিউডে কাজ পাওয়ার জন্য সেক্সিজম খুবই গুরুত্বপূর্ণ, বিস্ফোরক অভিনেত্রী

ক্যারিয়ারের শুরুতেই তিনি পেয়েছেন বড় সুযোগ আর সুযোগ পেয়েই নিজেকে প্রমান করেছেন দক্ষ অভিনয়ের মাধ্যমে। আমির খানের সাথে স্ক্রিন শেয়ার করে তিনি ‘দঙ্গল’ সিনেমায় হয়েছিলেন আমির কন্যা। এরপর ‘ঠগ অফ হিন্দুস্তান’ সিনেমায় আমির খানের বিপরীতে অভিনয় করে তিনি যথেষ্ট প্রশংসা কুড়িয়ে নেন। এতক্ষন যার কথা বলা হলো তিনি আর কেউ নন তিনি হলেন দঙ্গল অন্য ফাতিমা সানা শেখ। কিন্তু আপনি জানেন কি মাত্র ৩ বছর বয়সেই ফাতিমা কে যৌন হেনস্থার স্বীকার হতে হয়।

শিশু থেকে যুবতী কিংবা বৃদ্ধা বারবার সকলেই যেখানে সেখানে যৌন হেনস্থার স্বীকার হন আজও। আর সেই তালিকা থেকে বাদ নেই সেলেব্রেটিরাও। কিন্তু কেন বার বার মেয়েদেরকেই যৌন হেনস্থার স্বীকার হতে হয় এই প্রশ্নের উত্তর নেই কারো কাছে। শিশু কালে অনেকেই বুঝতে পারেনা যে তারা যৌন হেনস্থার স্বীকার হচ্ছে। আবার অনেকে সেই বিষয়টা তৎক্ষণাৎ না বুঝলেও পরবর্তীতে বুঝতে পারে।

আর এবার সেই এটলিকা থেকে বাদ যায়নি দঙ্গল কন্যা ফাতিমা সানা শেখ। ফাতিমা সম্প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেছেন যে তাকে বলিউডে স্ট্রাগলের সময় চোখে আঙ্গুল দিয়ে বার বার বোঝানো হয়েছে যে বলিউডে কাজ পেতে গেলে যৌনতায় একমাত্র রাস্তা।

সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমের সামনে ফাতিমা তার ছোটবেলার কথা বলতে গিয়ে বলেন ‘‘মাত্র পাঁচ বছর বয়সে না না তিন বছর বয়সে প্রথম যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলাম। তারপর থেকেই শুরু লড়াই রোজের। বাঁচার জন্য মেয়েদের রোজ লড়াই করতে হয়। আমাকে বহু লোকেরা বলেছে সেক্সের বিনিময়েই কাজ পাওয়া যাবে। ইন্ডাস্ট্রিতে সেক্সিজম খুবই গুরুত্বপূর্ণ কাজ পাওয়ার ক্ষেত্রে। সব ইন্ডাস্ট্রিতেই থাকে’।

প্রসঙ্গত, বলিউডের অন্যতম সুন্দরীদের মধ্যে একজন হলেন ফতিমা। তিনি বলিউড দুনিয়ায় পথচলা শুরু করেন ১৯৯৭ সালে মুক্তি প্রাপ্ত ছবি ‘চাচি ৪২০’ এর মাধ্যমে। সেই সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছিলেন একটি ছোট্ট শিশুর ভূমিকায় সেই ছোট্ট শিশুই এখন হয়েছেন বলিউডের নায়িকা।

Back to top button